শেষপর্যন্ত ভালোবাসার জয় হলো।রবিবার থেকে প্রেমিকার বাড়িতে ধারনায় বসে শেষ হাসি হাসলো ধূপগুড়ি সারদাপল্লীর যুবক অনন্ত রায়। সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে অতন্ত আজ প্রেমিকদের কাছে আইকন। লিপিকা বিয়ে করতে রাজি হলে যুদ্ধ জয়ের চওড়া হাসি অনন্তের মুখে।।প্রেমের জয় হলো , বিয়েও সম্পন্ন সোমবার সন্ধ্যায়।এদিন নিজের পকেট থেকে সিঁদুর বার করে লিপিকার সিঁথিতে পরিয়ে দিতেই হাততালি ও উলুর বন্যা বয়ে যায়।আবেগে চোখের জল বেরিয়ে আসে পাত্র পাত্রী দুই জনেরই চোখে।যেই ভালোবাসা পাওয়ার জন্য এতো সংগ্রাম তাকে জীবন সঙ্গিনী হিসেবে পেয়ে বাকরুদ্ধ অনন্ত ।যদিও আনুষ্ঠানিক ভাবে বিয়ের আয়োজন করা হবে বলে পরিবার সূত্রে খবর। সারাদিনভর চাপানউতোরের পর বিয়েতে খুশি বন্ধু-বান্ধব থেকে পড়া প্রতিবেশী।অনন্ত বর্মন এবং লিপিকা বর্মন এর চার হাত এক হয়ে সংসার সুখের হোক এটাই চাইছে সাধারণ মানুষ। দূরদূরান্ত থেকে বহু লোকের আনাগোনা চলছিল সারা দিনভর।সবাই তাদের দুহাত ভরে আশীর্বাদ করেছে।একদিনেই প্রেম ফিরে পাওয়ার দাবিতে ধারনায় বসে রাতারাতি সেলিব্রেটি ধূপগুড়ির এই যুবক।তার এই সংগ্রামে জয়ের পর আশায় বুক বাঁধছে ব্যর্থ প্রেমিকেরা।

https://youtu.be/MrPAJidcoCA

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here